রোজার ঈদের ছুটিতে আমাদের এটি একমাত্র রিল্যাক্স ট্রিপ প্ল্যান। রোজার ঈদের ছুটিতে আমাদের আরো ২টি প্ল্যান থাকলেও দুটোই ট্রেকিং ইভেন্ট হওয়াতে যারা ট্রেকিংয়ে অভ্যস্ত নয় তারা অনুরোধ করেছে যে একটা রিল্যাক্স ট্রিপ দিতে এবং রিল্যাক্স ট্রিপ সাজেকের চাইতে ভালো কোনো জায়গা হতে পারে না, তাই থাকছে সাজেকের ট্রিপ। আর যেহেতু রোজার ঈদে থাকছে পরিপূর্ণ বর্ষা। চারিদিকে সবুজের সমারোহ। এটাই সাজেক দেখার সবচাইতে উপযুক্ত সময়।

আমাদের সাজেকে এবার থাকছে জুমঘর ইকো রিসোর্টে রাত্রি যাপন। মেঘ, বৃষ্টি এবং পাহাড়ের মিতালী ঘরে বসে দেখার জন্য যে কয়টি রিসোর্ট সাজেকে আছে এটি তাদের মধ্যে অন্যতম। তা আর দেরি কেন? পরিবার পরিজন নিয়ে ঈদের ছুটিতে ঘুরে আসতে পারেন আমাদের সাথে।

Source : ETB

 

Source : ETB

 

Source : ETB

প্ল্যানিং ১:
১৭ ই জুন: রাতের বাসে খাগড়াছড়ির উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ।
১৮ ই জুন: সকালে বাস থেকে খাগড়াছড়ি নেমে আমরা জীপে উঠে যাবো দিঘীনালার উদ্দেশ্যে। সেখানে খিচুড়ি, ডিম দিয়ে নাস্তা সেরে আমরা চলে যাবো সাজেকের উদ্দেশ্যে। পথিমধ্যে ঘুরে ফেলবো হাজাছড়া ঝর্ণা এবং সকাল ১০টার আর্মি এসকর্টে চলে যাবো সাজেক। সেখানে দুপুর নাগাদ পৌঁছে যাবো। সাজেক পৌঁছে রিসোর্টে চেক ইন করে আমরা দুপুরে লাঞ্চ করে নেব মারুতি দিদির খাবার হোটেলে। এরপর কিছুক্ষণ ঘোরাফেরা করবো সাজেকে। রাতে আমরা হেলিপ্যাডে বসে তারা দেখবো এবং চলবে আড্ডাবাজি। সন্ধ্যায় থাকছে বারবিকিউ ডিনার। রাতে রিসোর্টে রাত্রি যাপন।
১৯ ই জুন: সকালে সাজেকে সূর্যোদয় দেখেই আমরা চলে যাবো সাজেকের পরের গ্রাম কংলাক পাড়া দেখতে। সেখান থেকে এসে সকালের নাস্তা সেরে সকাল ১০টার এসকর্টে খাগড়াছড়ি ফিরে আসা। এরপর রিসাং ঝর্ণা, আলুটিলা গুহা, তারেং, ঝুলন্ত ব্রীজ সহ সকল পর্যটন কেন্দ্র ঘুরে দেখা। রাতে খাগড়াছড়ি শহরে ডিনার করে রাতের বাসে ঢাকা ফিরে আসবো। আমাদের ভ্রমণের সমাপ্তি এখানেই।
কটেজের নাম: জুমঘর রিসোর্ট
ইভেন্ট ফি: ৫,০০০/- টাকা (জনপ্রতি)
কাপল পলিসি: ৫,৬০০/- টাকা জন প্রতি।
শিশু পলিসি: ৪ বছর হতে ১০ বছরের নিচের শিশুদের জন্য ২,০০০ টাকা। আর ৪ বছরের নিচের শিশুদের জন্য সম্পূর্ণ ফ্রী (বাসের সীটে বাবা-মায়ের সাথে বসতে হবে।)
প্ল্যানিং ২:
১৮ ই জুন: রাতের বাসে খাগড়াছড়ির উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ।
১৯ ই জুন: সকালে বাস থেকে খাগড়াছড়ি নেমে আমরা জীপে উঠে যাবো দিঘীনালার উদ্দেশ্যে। সেখানে খিচুড়ি, ডিম দিয়ে নাস্তা সেরে আমরা চলে যাবো সাজেকের উদ্দেশ্যে। পথিমধ্যে ঘুরে ফেলবো হাজাছড়া ঝর্ণা এবং সকাল ১০টার আর্মি এসকর্টে চলে যাবো সাজেক। সেখানে দুপুর নাগাদ পৌঁছে যাবো। সাজেক পৌঁছে রিসোর্টে চেক ইন করে আমরা দুপুরে লাঞ্চ করে নেব মারুতি দিদির খাবার হোটেলে। এরপর কিছুক্ষণ ঘোরাফেরা করবো সাজেকে। রাতে আমরা হেলিপ্যাডে বসে তারা দেখবো এবং চলবে আড্ডাবাজি। রাতে রিসোর্টে থাকা।
২০শে জুন: সকালে সাজেকে সূর্যোদয় দেখার জন্য খুব ভোরে উঠে আমরা চলে যাবো সাজেকের পরের গ্রাম কংলাক পাড়ায়। সেখান থেকে এসে সকালের নাস্তা সেরে আবার সাজেক ঘোরাঘুরি করে সন্ধ্যায় থাকছে বারবিকিউ, আড্ডা। রাতে রিসোর্টে থাকা।
২১শে জুন: সকালে ঘুম থেকে উঠে নাস্তা সেরে এবারে সকাল ১০টার আর্মি এসকর্টে আমরা চলে আসবো খাগড়াছড়ি এবং একে একে সারাদিন ঘুরে দেখবো রিসাং ঝর্ণা, আলীর গুহা, তারেং, ঝুলন্ত ব্রীজ সহ পর্যটন কেন্দ্রগুলো এবং রাতে খাগড়াছড়ি শহরে ডিনার করে ঢাকার উদ্দেশ্যে বাসে উঠে যাবো। আমাদের ভ্রমণের সমাপ্তি এখানেই।
কটেজের নাম: লুসাই কটেজ
ইভেন্ট ফি: ৬,০০০/- টাকা (জনপ্রতি)
কাপল পলিসি: ৬,৫০০/- টাকা জন প্রতি।
শিশু পলিসি: ৪ বছর হতে ১০ বছরের নিচের শিশুদের জন্য ৩,০০০ টাকা। আর ৪ বছরের নিচের শিশুদের জন্য সম্পূর্ণ ফ্রী (বাসের সীটে বাবা মায়ের সাথে বসতে হবে) ।
ইভেন্ট ফিতে থাকছে:
১। ঢাকা থেকে খাগড়াছড়ি থেকে ঢাকা নন এসি বাসে যাওয়া আসা।
২। খাগড়াছড়ি থেকে সাজেক জীপে করে যাওয়া আসা।
৩। সাজেকে ৩-৪ জন শেয়ার বেসিসে রিসোর্টে থাকা।
৪। ১৮ই জুন সকাল থেকে ১৯শে জুন রাতের খাবার অব্দি প্রতিবেলার মূল খাবার এবং চা-কফি তো থাকছেই একটু পরপর।
৫। সকল ধরনের প্রবেশ টিকিট
৬। গ্রুপ টি শার্ট ১টি করে জনপ্রতি
৭। গাইডেড সার্ভিস
ভ্রমণ কাল: ২দিন ৩ রাত
ভ্রমণের ধরন: রিল্যাক্স
ভ্রমণকারীর ধরন: বিগেনার্স
টিম মেম্বার সর্বোচ্চ: ২৪ জন।
এই ইভেন্টে আমরা যা যা দেখছি:
১। আলুটিলা রহস্যময় গুহা।
২। হাজাছড়া ঝর্ণা
৩। সাজেক ভ্যালি
৪। কংলাক পাড়া।
৫। তারেং
৬। রিসাং ঝরনা।
কনফার্ম করার নিয়মাবলী:
যারা যারা যেতে আগ্রহী তারা অবশ্যই ২,০৪০/- টাকা বিক্যাশে জমা দিয়ে আপনার আসন কনফার্ম করতে পারেন।
বিক্যাশ করতে পারেন:
০১৯১৬২২২৩৯৯ (পারসোনাল)
০১৮৮৩৬৯৭৭২৮(পারসোনাল)
বিক্যাশে টাকা পাঠানোর পর অবশ্যই আপনি আমাদের ইভেন্ট পেজে একটা কমেন্ট করে কনফার্ম করবেন এবং উপোরোক্ত বিক্যাশ নাম্বারে আপনার নাম, ঠিকানা, কন্টাক্ট নাম্বার সহ একটা এস এম এস করবেন।
ব্যাংক:
ব্যাংক একাউন্টেও টাকা জমা দিতে পারেন।
Bank Name: Dutch Bangla Bank Limited
Branch Name: Islampur Branch, Dhaka.
Account Name: Setu Chandra Das
Account Number: 118-101-52701
অথবা
সরাসরি দেখা করে হাতে হাতে টাকা জমা দিয়েও কনফার্ম করতে পারেন।
আমাদের সাথে দেখা করার ঠিকানা-
অফিস:
Extreme Trekker of Bangladesh [ETB] ETB Travel Shop
3/7-এ জনসন রোড, ভিক্টোরিয়া পার্ক, নগর সিদ্দীক প্লাজা, ২য় তলা, দোকান নং-১০২, (জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেটের বিপরীত পাশের বিল্ডিং)
ভ্রমন সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্যের জন্য:
সেতু – ০১৯১৬২২২৩৯৯/ ০১৮৮৩-৬৯৭৭২৮
আসিফ – ০১৬৭৬-১২৪৬৮২
তন্ময় – ০১৬৮১-৭১৪৯৩২

Author

Write A Comment