অ্যাডভেঞ্চার প্রেমীদের স্বর্গ স্থান হিসেবে বলতে গেলে, বাকেট লিস্টের মধ্যে সব থেকে উপরে থাকে নেপালের নাম। পৃথিবীর অন্যতম সুন্দর একটি দেশ। যে দেশে আছে হিমালয় এবং পৃথিবীর সব থেকে উঁচু উঁচু পর্বতগুলো। সারা পৃথিবীর সকল স্থান থেকেই প্রতিদিন নেপালে পর্যটকেরা আসেন নেপালের এই অপরূপ শোভা দেখতে। অনেকে আসেন ট্রেকিং করতে, অনেকে আসেন পাহাড় চড়তে, আবার অনেকে আসেন কদিন আমোদপ্রমোদ, আরাম আয়েশ করে জীবনের সব থেকে ভালো কিছু সময় কাটাতে।

Source: Pinterest

আবার অনেকে হানিমুনে চলে আসেন এই পাহাড়ের দেশে। তাই নেপাল থেকে যখন ফিরবেন তখন স্মৃতি হিসেবে কিছু না কিছু নিয়ে ফেরার চেষ্টা করবেন। যে দ্রব্যগুলো পৃথিবীর অন্য কোথাও পাওয়া যায় না শুধুমাত্র নেপাল ছাড়া, তার কিছুটা যদি আপনি সাথে করে নিয়ে যেতে পারেন তবে সেটি একটি বিশেষ স্মৃতি হয়ে আপনার বাড়িতে থাকবে। তাই কাঠমুণ্ডু পৌঁছানোর পর ঘোরাঘুরি শেষ করে যাবার আগে যে দ্রব্য সামগ্রী আপনার সাথে করে নিয়ে যেতে পারেন সেগুলোর সম্পর্কে কিছু ধারণা দেয়ার চেষ্টা করছি।

সিঙ্গিং বোলস

নেপালের সুর করা বাটিগুলো সারা পৃথিবীতে বিশেষভাবে খ্যাতিসম্পন্ন। এই বাটিগুলো মেডিটেশনের কাজে ব্যবহার করা হয়। সাধারণত শত শত বছর আগে থেকে নেপালিরা এই বাটি থেকে উৎপন্ন সুরকে কাজে লাগিয়ে তাদের আত্মা ও মনকে শান্ত রাখত।

এগুলো তৈরি করা হয় পিতল দিয়ে এবং এর সাথে থাকে একটি কাঠের ছোট হাতল। যে হাতলটি বাটির চারপাশে ঘুরালে অদ্ভুত এক মন জুড়ানো সুরের সৃষ্টি হয়। তাই আপনি যদি মেডিটেশন নাও করেন, স্মৃতি হিসেবে সাথে করে নিয়ে যেতে পারেন এই সিঙ্গিং বোলস।

Source: The Gazette

থাংকা পেইন্টিংস

বিভিন্ন ধরনের রঙিন ফেব্রিক্স বা পোশাকের উপর আঁকা হয়ে থাকে নেপালের বিশেষ কিছু ইলুমিনেশন জাতীয় ছবি। যার মধ্যে থাকে বুদ্ধ এবং দেব-দেবীদের ছবি। যেগুলো নেপালিদের ধর্মীয় বিশ্বাসের অন্যতম একটি প্রতীক। এটি হয়ে থাকে এমব্রয়ডারি করা এবং সুতোর কাজ করা, আবার বেশিরভাগ থাংকাতেই থাকে তুলির আচড়।

শিল্পীরা গভীর মমতা দিয়ে ছোট ছোট কাগজ অথবা কাপড়ের উপর চিত্র ফুটিয়ে তুলে থাকেন। যেগুলো তাদের ভরসা এবং বিশ্বাস দুটিকে বৃদ্ধি করে বলে তাদের ধারণা। এটিকেও আপনি বাকেট লিস্টে রাখতে পারেন স্মৃতি হিসেবে।

SOurce: TraditionalArtofNepal.com

পাশমিনা বা পশমের চাদর

এই পাশমিনাগুলো মূলত ভারত এবং পাকিস্তানের কাশ্মীর রাজ্যগুলোতে তৈরি করা হতো। কিন্তু বর্তমানে নেপালেও এই বিশেষ চাদরগুলো তৈরি করা হয়। খুবই নরম উল দিয়ে তৈরি করা এ চাদরগুলো অল্প সময়ে ঠাণ্ডার মধ্যে আপনার শরীরকে উষ্ণ করে তুলবে। কোনো সোয়েটার অথবা হালকা কোনো পোশাকের উপর এই চাদরগুলো আপনি গায়ে জড়িয়ে ঘুরে বেড়াতে পারেন অল্প ঠাণ্ডার মধ্যে।

এছাড়া অনেক নামিদামি পাশমিনাতে রুপা বা স্বর্ণের কাজ করা থাকতে পারে। সেগুলোর দাম আবার অত্যধিক। চাদরগুলো ইয়ানের গায়ের পশম দিয়ে তৈরি করা হয় তাই ভেতরে গরম আটকে থাকে খুব সহজে। ব্যবহারের জন্য অথবা আপনার ভ্রমণের স্মৃতি হিসেবে পাশমিনা নিয়ে আসতে পারেন আপনার সাথে করে।

Source: iclimbedthat

নেপালের চা

নেপালের পাহাড়ি পরিবেশ নেপালের চা শিল্পকে নিয়ে গেছে একটি অন্য পর্যায়ে। প্রচুর চা উৎপন্ন হয় নেপালের পাহাড়গুলোতে। যে একবার নেপালে গিয়ে নেপালের চা খেয়েছে সেই বলতে পারবে নেপালের চা কত মধুর হতে পারে। তাই নেপালে ঘুরতে গেলে নেপাল থেকে চা না খেয়ে ফিরে আসলে আমার মতে আপনার নেপাল ঘোরাটাই বৃথা। তাই ফিরে আসার সময় সাথে করে কিছু নেপালি ফ্রেশ চা নিয়ে আসার চেষ্টা করবেন যাতে অন্যরাও চেখে দেখতে পারে।

Source: .yourhead.space

প্রেয়ার ফ্ল্যাগ

পৃথিবীতে তিব্বত, নেপাল এবং ভারত এই তিনটির দেশে প্রেয়ার ফ্ল্যাগ তাদের বিশ্বাসের একটি বস্তু। এগুলো এভারেস্টের চূড়া থেকে শুরু করে ধর্মীয় পবিত্র স্থানগুলোতে সবখানেই দেখা যায়।

আপনি যেখানেই যাবেন প্রেয়ার ফ্ল্যাগগুলো দেখতে পাবেন বিশেষ করে নেপালে। প্রায় সবখানে চোখে পড়ে এগুলো। তাদের বিশ্বাস মতে এই প্রেয়ার ফ্লাগগুলোই হাজার হাজার বছর ধরে রক্ষা করে চলেছে তাদের সম্প্রদায়গুলোকে। তাই এগুলো তাদের কাছে খুবই মূল্যবান এবং পবিত্র। কিছু প্রেয়ার ফ্ল্যাগ সাথে করে আনতে পারলে কিন্তু মন্দ হয় না।

Source: ScoopWhoop

নেপালি গহনা

নেপালের রুপা কোয়ালিটির জন্য সারা পৃথিবী খ্যাত। এই রুপা এতটাই বিশুদ্ধ হয় অনেক মানুষ নেপালে আসেন শুধুমাত্র রুপার গহনা কিনতে। নেপালে এই গহনাগুলো খুব কম দামে পাওয়া যায়। গহনাগুলো মূলত নেপালের সংস্কৃতির একটি বিশেষ অংশ। যেমন পুঁতি এবং সিলভারের গহনাগুলো নেপালি মেয়েদের দেয়া হয় যখন তাদের বিবাহ হয়। বিবাহের সময় তারা এগুলো পারিবারিক সম্পত্তি হিসেবে পায়।

এগুলো ছাড়াও প্রাচীন কিছু গহনা রয়েছে যেগুলো ইয়ক, ভেড়া এবং অন্যান্য পশু পাখির হাড় দিয়ে তৈরি করা হয়। এই গহনাগুলো তাদের শিল্পের একটি বিশেষ অংশ। যদি কেউ গহনা প্রেমী হয়ে থাকেন অথবা কোনো দেশের শিল্প সংস্কৃতি প্রেমী হয়ে থাকেন কিংবা নাও হয়ে থাকেন চেষ্টা করবেন নেপাল থেকে কিছু গহনা কিনে আনার। কারণ এই গহনাগুলো নেপালে ছাড়া পৃথিবীর আর কোথাও পাবেন না।

Source: roughguides

খুকরি ছুরি

এই ছবিগুলো মূলত নেপালি ছাড়া অন্যরা ব্যবহার করে থাকেন। বিশেষভাবে তৈরি করা এই ছবিগুলো সিলভার এবং কার্ড অথবা বিভিন্ন পশু পাখির হাটের সমন্বয়ে তৈরি করা হয়।

এই ছবিগুলো একই সাথে তাদের ভালোবাসা, সম্মান এবং সাহসের প্রতীক হিসেবেই দেখা হয় পুরো নেপালে সাধারণত লোকাল মার্কেটেগুলো খুঁজে পাওয়া যায়। তবে এই ছুরি বহনের আগে কোনো ফ্লাইটে যাওয়ার আগে অবশ্যই আপনার এয়ারলাইন পুলিশের সাথে যোগাযোগ করে নেবেন এটা কে যেভাবে নেওয়া যায় সেই পদ্ধতি অবলম্বন করে তারপর এটি সাথে করে আপনি নিয়ে আসতে পারবেন।

Source: roughguides

টিপস

নেপালে কোনো দ্রব্য কেনাকাটার আগে দামাদামি করে নেবেন। মনে রাখবেন সব ধরনের রাস্তার পণ্যেই ২০-৩০% কম মূল্যে কিনতে পারবেন। চেষ্টা করবেন প্রাচীন কোনো দ্রব্য না কেনার। কোনো একটি দেশ থেকে এন্টিক দ্রব্য উপযুক্ত সার্টিফিকেট ও পার্মিট ছাড়া অন্য দেশে বহন করা বেআইনি। তাই এই ব্যাপারে সচেতন থাকবেন।

Author

Write A Comment